শিষ্যের কাছে হার গুরুর,৭ উইকেটে জিতে আই পি এল অভিযান শুরু করল পন্থের দিল্লি ক্যাপিটালস.

54
Spread the love

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: সত্যিই কি ধোনি যুগের অবসান ঘটতে চলেছে?‌ গত বছর আইপিএলে তারই ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। শনিবার দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে ছবিটা আরও পরিস্কার হয়ে গেল। ব্যাট হাতে ব্যর্থ ধোনি। পৃথ্বী-শিখর ঝড়ে উড়ে গেল চেন্নাই। ৭ উইকেটে জিতে আই পি এল অভিযান শুরু করল দিল্লি ক্যাপিটালস।

সুরেশ রায়না আউট হওয়ার পর ক্রিজে এসেছিলেন ধোনি। অফস্টাম্পের বাইরে পড়া আবেশ খানের বল কভারে খেলার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু ব্যাটের ভেতরের কানা ছুঁয়ে বল শরীরে লাগে। পরের বলটাও ব্যাটের কানা স্পর্শ করে। তবে এবার আর শরীরে নয়, সরাসরি স্টাম্পে। শূন্য রানে বোল্ড। মাত্র ২ বল উইকেটে স্থায়ী!‌‌ না, ফিনিশার হওয়া হল না মহেন্দ্র সিং ধোনির। বরং মাহি যুগের অবসানের ইঙ্গিত।

 

দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে তাঁর দিকেই নজর ছিল ক্রিকেটপ্রেমীদের। অনেকেই ভেবেছিলেন গত মরশুমের ব্যর্থতা কাটিয়ে এবছর ছন্দে ফিরবেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। কিন্তু প্রথম ম্যাচেই ব্যর্থতা। ক্যাপ্টেন ব্যর্থ হলেও চেন্নাই সুপার কিংসকে লড়াই করার মতো জায়গায় পৌঁছে দিয়েছিলেন সুরেশ রায়না, মইন আলিরা।

CSK vs DC, IPL 2021 highlights Match 2: Delhi Capitals gun down 189 to hammer Chennai by 7 wickets - India Today

রান তাড়া করতে পছন্দ করেন ধোনি। কিন্তু তাঁকে সে সুযোগ দেননি ঋষভ পন্থ। উত্তরসূরীকে টস জেতার ব্যাপারে অধিনায়ক হিসেবে প্রথম ম্যাচেই টেক্কা দিয়ে গেলেন ঋষভ পন্থ। যদিও প্রথমে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে দিল্লি ক্যাপিটালসকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেওয়ার মতো রান তুলে নেয় চেন্নাই সুপার কিংস। ৩ ওভারের মধ্যে ফাফ ডুপ্লেসি (‌০)‌ ও রুতুরাজ গায়কোয়াড় (‌৫)‌ ডাগ আউটে ফিরে গেলেও দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব তুলে নেন মইন আলি (‌৩৬)‌ ও সুরেশ রায়না (‌৫৪)‌। গত বছর আইপিএল থেকে সরে দাঁড়ালেও এবছর প্রথম ম্যাচে নজর কাড়েন রায়না। অম্বাতি রায়ডু করেন ২৩। সাম কারেন (‌১৫ বলে ৩৪)‌ ও রবীন্দ্র জাদেজার (‌১৭ বলে অপরাজিত ২৬)‌ সৌজন্যে ২০ ওভারে ১৮৮/‌৭ রানে পৌঁছয় চেন্নাই সুপার কিংস। দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে ভাল বোলিং করেন ক্রিস ওকস (‌২/‌১৮)‌ ও আবেশ খান (‌২/‌২৩)‌।

ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু করেছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। পৃথ্বী শ এবং শিখর ধাওয়ানের ওপর কোনও প্রভাব বিস্তার করতে পারেননি দীপক চাহার, সাম কারেন, শার্দূল ঠাকুররা। বিজয় হাজারে ট্রফি থেকে দুর্দান্ত ছন্দে রয়েছেন পৃথ্বী। আইপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচেও সেই ছন্দ ধরে রাখলেন। ওপেনিং জুটিতে ১৩.৩ ওভারে ১৩৮ রান তুলে দলের জয়ের ভিত গড়ে দেয় পৃথ্বী-শিখর জুটি। ৩৮ বলে ৭২ রান করে ডোয়েন ব্রাভোর বলে আউট হন পৃথ্বী। যদিও এই দুই ব্যাটসম্যান দু–দুবার জীবন পান।

পৃথ্বী ফিরে যাওয়ার পর শার্দুল ঠাকুরের বলে এলবিডব্লিউ হন শিখর (৫৪ বলে ৮৫)। মার্কাস স্টইনিসও (১৪) তাঁর শিকার। পৃথ্বী, শিখর ও স্টইনিস ফিরে গেলেও জয় পেতে সমস্যা হয়নি দিল্লি ক্যাপিটালসের। দলকে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে দেন অধিনায়ক ঋষভ পন্থ (অপরাজিত ১৫)। ৬ বল বাকি থাকতেই ১৯০/৩ তুলে ম্যাচ জিতে নেয় দিল্লি ক্যাপিটালস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here